শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:০২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
Logo রংপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হাজিরহাটে মারপিট, আহত ৩ Logo নালমুখ বাজারে শেফা ডায়াগনস্টিক উদ্বোধন করলেন বিমান প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী। Logo চুনারুঘাটে বিএনপি নেতা মরহুম দিদার মিয়া স্বরনে শোক সভা। Logo শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে মাংস ব্যবসায়ীকে ৫হাজার টাকা জরিমানা Logo পেশাদার ভালো সাংবাদিক হওয়ার জন্য যা প্রয়োজন Logo সাপাহার মডেল প্রেসক্লাবের ৩য় বর্ষপূর্তি উদযাপন Logo অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি, র‌্যাব-৭ চট্রগ্রামের বিশেষ অভিযানে সাবেক চেয়ারম্যানসহ আটক( ৮) Logo গর্ভধরিনী মাকে শ্লীলতাহানীর হাত হতে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় মা ছেলে গুরুত্বর আহত Logo হেযবুত তওহীদের নারীদের উপর উগ্রবাদীদের হামলা বিক্ষুব্ধ নারীদের শ্লোগানে প্রকম্পিত জাতীয় প্রেসক্লাব Logo শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে স্কুল ছাত্রীকে গণধর্ষণ ও হত্যা মামলার মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার
বিজ্ঞাপন
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ।  যোগাযোগঃ 01977306839

হত্যা নাকি আত্মহত্যা বিচারের দাবীতে লাশ নিয়ে এলাকাবাসীর সড়ক অবরোধ।

Reporter Name / ৩২২ Time View
Update : বুধবার, ১৬ মার্চ, ২০২২, ১২:৪৩ অপরাহ্ণ

ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রামের দুই পক্ষের মারামারিতে গোপনাঙ্গ চেপে ধরে আহত হওয়ার পর চিৎসাধীন অবস্থায় এক প্রতিবেশীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু হাসপাতাল বলছে বিষপান। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার দুপুর ১ টার দিকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়েছে।

২৮ বছর বয়সী নিহত জাবেদ ইসলাম কাজিপাড়ার নূর ইসলামের ছেলে।

আটক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নূর আলম সদর উপজেলার মোহম্মদপুর ইউনিয়নের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন। তাকে কাজিপাড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মোহম্মদপুর ইউপি চেয়ারম্যাম মোঃ সোহাগ এবং আটকের বিষয়টি নিশ্চিৎ করেছেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভীরুল ইসলাম।

ইউপি সদস্য সোহাগ বলেন, আহত জাবেদ ইসলাম হাসপাতালে মারাগেছে খবর পেয়েছি। গত সপ্তাহে গ্রামের দুই পরিবারের দুই ছোট বাচ্চা মাঠে খেলতে গিয়ে হাতাহাতি করে। এ নিয়ে পরিবার দুটির মাঝে হাতাহাতি হয়। এ ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নূর আলমসহ উভয়পক্ষ আমার কার্যালয়ে আসলে আমি তাদের চিকিৎসার পরামর্শ দেই।

স্থানীয়দের বরাতে চেয়ারম্যান বলেন, পরবর্তীতে কদিন বাদে তারা চিকিৎসা নিয়ে বাসায় আসলে আবারও তর্কে জড়িয়ে মারামারি করে। এসময় উভয় পক্ষ আবারও আহত হয়৷ এতে জাবেদের গোপনাঙ্গ চেপে ধরার অভিযোগ উঠে প্রতিপক্ষ এক মহিলার বিরুদ্ধে। এদিন সংঘর্ষে অপর পক্ষের এক নারী গুরুতর যখম হলে তাকে চিকিৎসার জন্য রংপুর নিয়ে যায় পরিবারের লোকজন।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী মোমেনা বেগম বলেন, গত ৭ মার্চ তারিখে দ্বিতীয়বারোর মতো মারামারি হয় দুই পক্ষের মধ্যে। জাবেদকে ধরে মারপিট করে রনি ও তার বৌ মামুনি আক্তার। এ সময় রনীর বৌ জাবেদোর গোপনাঙ্গ চেপে ধরলে জাবেদ বাঁচাও বলে চিৎকার করে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে তাকে আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। গতকাল সে আবারও অসুস্থ

ওসি তানভীরুল জানান, এ ধরনের মারামারির ঘটনায় গতকাল জাবেদের অভিযোগের প্রেক্ষীতে মামলা দায়ের হয়েছে। এতে রনি ও তার স্ত্রী মামুনি সহ আরও ৬ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে।

ওসি বলেন, আমরা ঘটনাটি তদন্ত করছি। লাশ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

অভিযুক্ত রনির মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়। সে তার স্ত্রীর সাথে রংপুরে আছে বলে স্থানীয় একটি সূত্র থেকে জানা যায়।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার রাকিবুল হাসান চয়ন বলেন, জাবেদ গত ৭ তারিখে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসে। চিকিৎসা নিয়ে সে বাসায় যায়। গতকাল সে বিষপান করে অসুস্থ্য হাসপাতালে ভর্তি হয়। জাবেদের মৃত্যুতে রহস্য রয়েছে আমরা তদন্ত করছি বিষয়টি।

নিহতের স্ত্রী লিপি আক্তার বলেন, আমার স্বামী বিষ পান করেনি। গোপানাঙ্গ চেপে ধরার কারনে তীব্র ব্যাথায় বেশ কদিন ধরে কাতরাচ্ছিল স্বামী। তাই গতকাল হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলাম। এদিকে আজ মঙ্গলবার ১৫ -ই মার্চ ২০২২ইং জাবেদের হত্যকারীদের বিচারের দাবিতে রাস্তায় মরদেহ রেখে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন ও প্রতিবাদ জানিয়েছে তার স্ত্রী, সন্তান ও এলাকাবাসী।

মঙ্গলবার ঠাকুরগাঁও-পীরগঞ্জ মহাসড়কের কালিতলা নামক স্থানে প্রায় ৩ ঘন্টা ব্যাপী সড়ক অবরোধ করে রাখে তারা। পরে পুলিশ গিয়ে বিচারের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি নিয়েন্ত্রণে আসে। এ ঘটনায় পুলিশ নুর আলম ও কবির হোসেন নামে ২ জনকে গ্রেফতার করে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Developed by : BD IT HOST