মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৪:৩১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
Logo কারাগারে বসে পরিকল্পনা;জামিনে বেড়িয়ে এক পরিবারের সদস্যদের অজ্ঞান করে ৪০ লক্ষ টাকা চুরি,আটক ৪ Logo ঝিনাইগাতী ক্লাবের উদ্যোগে ঘর পেলো অসহায় সাফিয়া Logo সরাসরি দুর্নীতিবাজকে বলতে শিখুন দুর্নীতিবাজ ঃ মো.জহুরুল হক Logo আদর্শ জাতি গঠনে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। Logo নরসিংদীতে অবৈধ অস্ত্র ও গুলিসহ যুবক গ্রেপ্তার  Logo শেরপুরে পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত Logo শেরপুরের নকলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১ Logo নালিতাবাড়ীতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার Logo জেলা প্রেসক্লাবের দীলু সহ সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় কফি হাইজের শেষ বেলা শুভেচ্ছা। Logo আজ শেরপুরের ভাষা সৈনিক আব্দুর রশীদ এর দশম মৃত্যুবার্ষিকী
বিজ্ঞাপন
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ।  যোগাযোগঃ 01977306839

তেল-সারের দাম বাড়ায় বিপাকে কৃষক

Reporter Name / ১১০০ Time View
Update : সোমবার, ৮ আগস্ট, ২০২২, ৪:৪৭ পূর্বাহ্ণ

সঞ্জয় দাস,নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় হতাশ হয়ে পড়েছে নীলফামারীর কৃষকরা। ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষ করতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। অপর দিকে চলতি আমন মৌসুমে আকাশের বৃষ্টি না হওয়ায় সেচযন্ত্র ব্যবহার করে সেচ দেওযেল-সারের দাম বাড়ায় বিপাকে কৃষক

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় হতাশ হয়ে পড়েছে নীলফামারীর কৃষকরা। ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষ করতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। অপর দিকে চলতি আমন মৌসুমে আকাশের বৃষ্টি না হওয়ায় সেচযন্ত্র ব্যবহার করে সেচ দেওয়ার খরচ যোগ হওয়া ও বেশি দামে সার কিনতে হিমশিম খাচ্ছে তারা।

সরজমিনে শনিবার (৬ আগস্ট) জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, পূর্বে ১ বিঘা জমি চাষ করতে লাগত ৩০০ টাকা, যা জ্বালানি মূল্য বেড়ে দাড়িয়েছে ৪৫০ টাকা। সেচ ও সার মিলে অতিরিক্ত প্রায় দেড়-দুই হাজার টাকা বেশি খরচ হবে ১ বিঘা জমিতে। এতে চাষাবাদ করে খরচ সবকিছু বাদ দিলে কৃষকের ভাগ্যে আর কিছুই জুটবে না বলে দাবি কৃষকদের।

জেলা সদরের হাড়োয়া এলাকার কৃষক আবুল কালাম বলেন, সরকার হামাক আর বাচাইবে না। যেভাবে দাম বাড়ায়ছে তাতে আবাদ ও করা যায় না। এখন ঘরে বসে থাকি মরা ছাড়া উপায় নাই।

জলঢাকা এলাকার কৃষক মতিয়ার বলেন, আকাশে পানি নাই, ৫০০ টাকার তেল আনছি ৩ ঘন্টা মেশিন চলে নাই । মটর দিয়া দিলে এক’শবার যায় কারেন্ট। সারের যে দাম আবাদ আর করব না।

ট্রাক্টরচালক জসিয়ার ইসলাম বলে, আগে ৩০০ টাকায় এক বিঘা জমি চাষ করতাম। এখন হঠাৎ তেলের দাম বাড়ায় ৪৫০ টাকা নিয়েও লস হব। কৃষকরা তো বুঝতেছে না । সকাল থেকে কয়েকজনের সাথে ঝগড়া লাগছে।

নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, জ্বালানি দাম বাড়ায় প্রান্তিক পর্যায়ের কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তবে ফলন ভালো পেলে সে ক্ষতিপূরণ করতে পারবে তারা। আর সারের দাম বাড়ায় তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না। এতে করে ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমবে। আমরাও চাই ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমুক। এর পরিবর্তে ডিএপি সার ব্যবহার করতে পারে কৃষকরা। ডিএপি’র দাম তো বাড়ে নাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Developed by : BD IT HOST