সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০১:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
Logo কারাগারে বসে পরিকল্পনা;জামিনে বেড়িয়ে এক পরিবারের সদস্যদের অজ্ঞান করে ৪০ লক্ষ টাকা চুরি,আটক ৪ Logo ঝিনাইগাতী ক্লাবের উদ্যোগে ঘর পেলো অসহায় সাফিয়া Logo সরাসরি দুর্নীতিবাজকে বলতে শিখুন দুর্নীতিবাজ ঃ মো.জহুরুল হক Logo আদর্শ জাতি গঠনে সম্মিলিত প্রচেষ্টা প্রয়োজন। Logo নরসিংদীতে অবৈধ অস্ত্র ও গুলিসহ যুবক গ্রেপ্তার  Logo শেরপুরে পরিবেশ দিবস উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত Logo শেরপুরের নকলায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১ Logo নালিতাবাড়ীতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার Logo জেলা প্রেসক্লাবের দীলু সহ সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় কফি হাইজের শেষ বেলা শুভেচ্ছা। Logo আজ শেরপুরের ভাষা সৈনিক আব্দুর রশীদ এর দশম মৃত্যুবার্ষিকী
বিজ্ঞাপন
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ।  যোগাযোগঃ 01977306839

আর কত কষ্ট করলে আমি একটা সরকারি ঘর পাইবো

মোঃ সোলায়মান হাওলাদার বরিশাল বিভাগীয় প্রতিনিধিঃ / ১২৭১ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৭ মার্চ, ২০২২, ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ

বরিশাল নগরীর প্যারারা রোড় নিবাসী ফরিদা বেগম (৫১) পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। অন্যের বাড়িতে আশ্রিত থেকে চলছে তাদের বসবাস।

জানা যায়, বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুধল গ্ৰামে নদী ভাঙ্গনে স্বামীর বসত ভিটা হারিয়ে প্রায় ৩০ বছর আগে পরিবার নিয়ে বরিশালে আসেন। তারা বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ১৭ নং ভোটার। তার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৬ জন। গতকয়েক বছর যাবৎ একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যাক্তি স্বামীর অসুস্থতার কারনে পরিবারের হাল ধরতে নিজেই বরিশাল ডায়বেটিসক হাসপাতালে আয়ার কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছে।

ফরিদা বেগম জানান, আমার দরিদ্র পরিবারে হাতাশা লেগে রয়েছে। স্বামী অসুস্থ থাকায় আমাকে ধরতে হয় সংসারের হাল। আমার নেই কোন জায়গা জমি, নেই কোন ঘর। অন্যের বাড়িতে ভাঙ্গা ঘড়ে খুব কষ্ট করে বসবাস করি। তিনি আরও বলেন, শুনেছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের গরীবদের নাকি ঘর দেয়। আমি একটি সরকারী ঘর পাওয়ার জন্য সদর উপজেলার ইউএনও স্যারের কাছে একটি আবেদন করছি। অন্য মানুষের বাড়িতে আর কতদিন থাকব।

বিসিসির ১৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গাজী আক্তারুজ্জামান হিরু বলেন, ফরিদা বেগম পরিবার নিয়ে খুবই কষ্টে দিনযাপন করছেন। তারা ইতিপূর্বে বরিশাল সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ঘর পাওয়ার জন্য একটি আবেদন করেছেন। সরকারীভাবে তাদেরকে একটি ঘর দিলে পরিবারটির অনেক উপকার হত।

এ বিষয়ে প্যারারা রোডের একাধিক বাসিন্দারা বলেন, আসলেই ফরিদা বেগমের পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন। সরকারীভাবে তাদেরকে একটি ঘর দিলে পরিবারটির অনেক উপকার হত। একটি ঘর পেলে তারা সুন্দরভাবে জীবন যাপন করতে পারবে। যাচাই-বাছাই করে তাদের একটি সরকারি ঘর দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Developed by : BD IT HOST